পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (পাবিপ্রবি) ৮ ডিসেম্বর খুলছে। ছাত্র আন্দোলনের মুখে বন্ধ হওয়ার প্রায় এক মাস পর বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ঘোষণা দিয়েছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় রিজেন্ট বোর্ডের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে রিজেন্ট বোর্ড জরুরি সভা শেষে ৮ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার ঘোষণা দিয়েছে প্রশাসন। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৭ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব হল খুলবে এবং ৮ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে। সে অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে বিষয়টি জানানো হচ্ছে।

জনসংযোগ দপ্তরের সহকারী পরিচালক ফারুক হোসেন চৌধুরী বলেন, সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব নির্দেশনা আগের মতোই থাকবে। তবে ৮ ডিসেম্বর থেকে বিশ্ববিদ্যালয় যথাযথ নিয়ম অনুযায়ী চালু হবে। ৫ নভেম্বর ছয় দফা দাবিতে প্রশাসনিক ভবনে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করেন। উপাচার্য ভবন থেকে বের হলে শিক্ষার্থীরা তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে তিনি দৌড়ে ক্যাম্পাসের ভেতরে নিজ বাসভবনে অবস্থান নেন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় সন্ধ্যায় রিজেন্ট বোর্ড জরুরি সভা করে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা ও ১০ ছাত্রকে বহিষ্কারের নির্দেশ দেয়। পাশাপাশি ঘটনা তদন্তে সহ-উপাচার্যকে প্রধান করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। পরদিন শিক্ষার্থীরা ৬ দফা ও ১০ ছাত্র বহিষ্কারের আদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ক্যাম্পাসে সব ধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করে। এর পর থেকে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দিতে ও ১০ ছাত্রের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতীকী অনশন করে।

17 total views, 1 views today